প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়

Categories

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়

About:

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হিসেবে নিয়োজিত আছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চতুর্থ মেয়াদে দায়িত্বভার গ্রহণের তারিখ: ০৭ জানুয়ারি ২০১৯। বিস্তারিত
প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ দুটি পৃথক মন্ত্রণালয়/বিভাগ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হিসাবে নিয়োজিত আছেন। অপরদিকে, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে ন্যস্ত রয়েছে।
স্বাধীনতা অর্জনের পরপরই ১৯৭১ সালের ডিসেম্বর মাসের শেষদিকে বাংলাদেশ সচিবালয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রম শুরু হয়। দেশের প্রথম প্রতিরক্ষামন্ত্রী ছিলেন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ১৯৭২ সালে মন্ত্রণালয়টি হাইকোর্ট ভবনে স্থানান্তরিত হয় এবং ১৪টি সংস্থা/দপ্তরকে মন্ত্রণালয়ের আওতায় আনা হয়। ১৯৭৬ সালে বেসামরিক বিমান পরিবহন অধিদপ্তরকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতা-বহির্ভূত করে বেসামিরক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় গঠন করা হয়। ১৯৮২ সালে মন্ত্রণালয়ের সাংগঠনিক কাঠামো ২১টি শাখার সমন্বয়ে পুনর্বিন্যাস করা হয়। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় গঠিত হওয়ার পর দুটি শাখা নবগঠিত মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে স্থানান্তরিত হওয়ায় বর্তমানে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের শাখার সংখ্যা ১৯টি।
সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ নানা পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে বর্তমান অবস্থায় উপনীত হয়েছে। ১৯৭৮ সালের ডিসেম্বর মাসে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে কমান্ডার-ইন-চিফস্ সেক্রেটারিয়েট প্রতিষ্ঠা করা হয় এবং পরে ১৯৮৭ সালে এর নাম পরিবর্তন করে সুপ্রিম কমান্ড হেডকোয়ার্টার্স নামকরণ করা হয়। ১৯৮৯ সালে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরিবর্তন ও পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার অংশ হিসাবে কয়েকটি অপারেশনাল ও প্রশাসনিক কার্যক্রম ন্যস্ত করার মধ্য দিয়ে সুপ্রিম কমান্ড হেডকোয়ার্টার্স ডিভিশন নামে একটি স্বতন্ত্র বিভাগ গঠিত হয়। ১৯৯১ সালে সুপ্রিম কমান্ড হেডকোয়ার্টার্স ডিভিশনের নাম পরিবর্তন করে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ নামকরণ করা হয় এবং সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের সাংগঠনিক ও প্রশাসনিক কাঠামো বর্তমান রূপ লাভ করে। বর্তমানে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগে প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার হিসাবে সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তা নিয়োজিত রয়েছেন।
পরযুক্তিগত উৎকর্ষ, সময়োপযোগী কর্ম-উদ্যোগ এবং বাস্তবানুগ ও দীর্ঘমেয়াদী কর্মপরিকল্পনার মাধ্যমে একটি সুখী ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনে অবদান রাখার দৃঢ়প্রত্যয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের আওতায় বিভিন্ন আন্তঃবাহিনী ও অসামরিক দপ্তর/সংস্থা/প্রতিষ্ঠান আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে চলেছে।

Mission & Vission:

ভিশন স্টেটমেন্ট
সশস্ত্র বাহিনী, আন্ত:বাহিনীদপ্তর এবং প্রতিরক্ষা সহায়ক অন্যান্য দপ্তর/সংস্থার কার্যক্রম সমন্বয়ের মাধ্যমে দেশমাতৃকার সার্বভৌমত্ব সমুন্নত রাখা।
মিশন স্টেটমেন্ট
০১। বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা এবং যে কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলার লক্ষ্যে একটি আধুনিক সশস্ত্রবাহিনী গড়ে তোলা;
০২। একবিংশ শতাব্দের চ্যালেঞ্জসমূহ মোকাবেলায় সশস্ত্রবাহিনীতে একটি সক্ষম ও উপযুক্ত মানব সম্পদ গড়ে তোলা। আধুনিক জ্ঞান, দক্ষতা ও কারিগরি কুশলতায় সমৃদ্ধ এই মানবসম্পদকে বর্তমান বিশ্বব্যবস্থার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ করে তোলা;
০৩। অন্যান্য দেশ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের বিভিন্ন বিষয়ে ধারণালাভ;
০৪। একটি উন্নততর, সুখী ও শান্তিপূর্ণ বিশ্ব গড়ে তোলার লক্ষ্যে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনসমূহে উল্লেখযোগ্য অবদান ও অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা।

Facilities:

N/A

Preferred Work Types:

N/A

Contact Us

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়

গনভবন কমপ্লেক্স শের-ই-বাংলা নগর,ঢাকা-১২০৭